Work Permit Visa in Japan

জাপান বর্তমান বিশ্বের ৩য় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ।  জাপানি কোম্পানিতে জব এর স্বপ্নপূরণের সুযোগ নিতে পারেন শুধুমাত্র ট্রেনিং ভিসার মাধ্যমে, কেননা জাপানি কোম্পানিতে বাংলাদেশিদের ওয়ার্ক পারমিট বর্তমানে বন্ধ রয়েছে।  এক্সিওম এর মাধ্যমে মাত্ৰ ১০জন ট্রেনিং ভিসার আবেদন করতে পারবেন।

■ জাপানে ট্রেনিং ভিসা!

যাদের বয়ষ ১৮ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ও জাপানি ল্যাংগুয়েজ জানা আছে তারাই ট্রেনিং ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন।  মাত্র ১০ জন আবেদন করতে পারবেন।  আপনি যদি জাপানি ভাষা না জানেন তাহলে আমাদের AGI ইনস্টিটিউট এ আপনি ভাষা শিখতে পারেন।

■ কোর্স ফি: মাত্ৰ ১৫০০০/- টাকা (শুধু মাত্র ট্রেনিং ভিসায় আবেদনকারীদের জন্য প্রযোজ্য)

■ জাপানে বিদেশি কোম্পানিতে ওয়ার্ক পারমিট ভিসা!!!!!

জাপানে বিদেশি কোম্পানিতে ওয়ার্ক পারমিট ভিসার জন্য, কমপক্ষে স্নাতক ডিগ্রি ও বয়স ২৪ থেকে ৪০ এর মধ্যে হতে হবে, জাপনি ভাষা না জানলেও চলবে কিন্তু ইংরেজি ভাষায় সাবলীল লিখতে ও বলতে পারতে হবে।

■ আবেদন এর জন্য প্রয়োজন:

পাসপোর্ট,ছবি,মার্কসসীট ও সার্টিফিকেট।

★ বিস্তারিত জানতে ও আবেদন করতে সরাসরি আমাদের অফিস এ যোগাযোগ করুন:

Appointment: 01646102130

(সকাল 10 টা থেকে সন্ধ্যা 7 টা , শনি – বৃহস্পতিবার)

■ আমাদের ঠিকানা:
———————
এক্সিওম এডুকেশন গ্রুপ ৷
আনাম র্যাংগস প্লাজা , ৫ম তলা( লিফট-৪),
রোড নং-৬/এ, (সাতমসজিদ রোড),
ধানমন্ডি, ঢাকা।

HELP LINE: 01646102130-1
Mobile: 01714100647
Web: www.studyabroadonline.com
Email: info@studyabroadonline.com

জাপানে কাজ এবং স্থায়ী বসবাসের সুযোগ!

★জাপানে আবেদন করার যোগ্যতা:
১।এস. এস. সি/ডিপ্লোমা বা সমমান, নূন্যতম GPA- 2.5
২। জাপানীজ ভাষায় ইন্টারভিউয়ে কথা বলতে হবে।
৩। বয়স সীমা ২০-৪০বছর।

★বেতনঃ বাংলাদেশী ১.৫ থেকে ২ লাখ টাকা।

★চাকুরীর ধরন : General ওয়ার্কার, ফ্যাক্টরি ওয়ার্কার, কনস্ট্রাকশন অফিসার’স হেল্পার এবং Construction কোম্পানি জব।

★Visa Validity : 03 Years work permit visa (Renewable)
★Processing Time: Total 3 month.
==============
★Document Required :
# Passport
# Photo 8copies.
# All Academic Certificate and Transcript (Photo copy).
# Police clearance Certificate.

=============
★জাপানে যাওয়ার জন্য আবেদন প্রক্রিয়া :
১। জাপানিজ ভাষা শিখতে হবে।
২। স্কাইপি ইন্টারভিউ দিতে হবে।
৩। ইন্টারভিউতে পাশ করলে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জাপানের ইমিগ্রেশনে জমা দিতে হবে।
৪। ইমিগ্রেশন (Ministry of Justice of Japan) থেকে ৯০ দিনের মধ্যে Pre-Visa (COE) ইস্যু করবে I
৫। বাংলাদেশে অবস্থিত জাপান এমব্যাসিতে প্রয়োজনীয় কাগজ-পত্র জমা দিয়ে ভিসা গ্রহণ করতে হবে।
N.B. ক্লাইন্ট নিজে এম্বাসি তে পাসপোর্ট জমা দিবে এবং রিসিভ করবে।

=======
আরও বিস্তারিত জানার জন্য যোগাযোগ করুন-

এক্সিওম এডুকেশন গ্রুপ ৷
আনাম র‌্যাংগস প্লাজা , ৫ম তলা
( লিফট-৪), রোড নং-৬/এ, সাতমসজিদ রোড, ধানমন্ডি, ঢাকা
Hotline: +8801646102130
Mobile: +8801933322155